• Home »
  • রাজনীতি »
  • অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্রসহ আবারও সম্রাট গ্রেফতার

অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্রসহ আবারও সম্রাট গ্রেফতার

জেড এম সম্রাট ও তার সহযোগী দ্বীন ইসলাস রাসেল।

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ায় তিনটি বিদেশি অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র, ম্যাগজিন ও গুলিসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী জেড এম সম্রাট ও তার সহযোগী দ্বীন ইসলাস রাসেলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এর আগেও তিনি একাধিকবার অস্ত্রসহ গ্রেফতার হয়েছিলেন। ২০১৭ সালে অস্ত্রসহ গ্রেফতার মামলায় তার ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। ওই মামলায় তিনি জামিনে ছিলেন।

সোমবার (২৭ জুলাই) ভোরে কুষ্টিয়া র‌্যাব-১২ ইউনিটের সদস্যরা কুষ্টিয়া সদর থানাধীন বড় আইলচরা এলাকা থেকে আগ্নেয়াস্ত্র, গুলি, ম্যাগজিন ও প্রাইভেটকারসহ তাদের দু্ইজনকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে র‌্যাব সদস্যরা আইলচরা নামক স্থানে অবস্থান নেয়। এসময় আইলচারা এলাকায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী জেড এম সম্রাট (৩১) ও তার সহযোগী দ্বীন ইসলাস রাসেলকে (২৮) গ্রেফতার করা হয়।

অভিযানকালে র‌্যাব তাদের কাছে থাকা তিনটি বিদেশি অত্যাধুনিক পিস্তল, তিনটি ম্যাগজিন ও ৯ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করে। এছাড়া তাদের ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটি জব্দ করে র‌্যাব।

গ্রেফতার সম্রাট কুষ্টিয়া শহরের কমলাপুর এলাকার আমিরুল ইসলাম বাবলু জোয়াদ্দারের এবং রাসেল শহরের মজমপুর এলাকার মৃত গোলাম রসুলের ছেলে।

উদ্ধার অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র, ম্যাগজিন ও গুলি।

গ্রেফতার সম্রাট চরমপন্থী সংগঠন গণমুক্তি ফৌজের এককালের দুর্দান্ত প্রতাপশালী নেতা মুকুলের শীর্ষ সহযোগী বলে র‌্যাব জানায়। সম্রাট দীর্ঘদিন যাবত অবৈধ অস্ত্রবহন ও ভয়-ভীতি দেখিয়ে টেন্ডারবাজিসহ নানা সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। আসামিদের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া মডেল থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে।

র‌্যাব-১২ কুষ্টিয়া ইউনিটের মেজর নাঈম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় গ্রেফাতার আসামিদের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া মডেল থানায় অস্ত্র আইনে মামলা হয়েছে।

এদিকে, অবৈধ অস্ত্র নিজ হেফাজতে রাখার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ততকালীন কুষ্টিয়া শহর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জেডএম সম্রাটকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয় আদালত।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সালে কুষ্টিয়ার জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতের বিচারক শেখ মোহা. আমীনূল ইসলাম এক জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় ঘোষণা করেন।

তখন রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন কুষ্টিয়া আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) এ্যাডভোকেট শামসুজ্জামান মনি।

উলেক্ষ্য, জেড এম সম্রাট শৈলকুপা উপজেলার কাঁচেরকোল ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম আমিরুল ইসলাম ওরফে বাবলু জোয়ারদার।

মন্তব্য করুন