কাঁচেরকোলে চলছে সুপার সাইক্লোন ‘আম্ফানে’র তাণ্ডব

ডাকুয়া২৪.কম: বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট শতাব্দির প্রথম সুপার সাইক্লোন আম্ফানের তাণ্ডব চলছে শৈলকুপা উপজেলা তথা কাঁচেরকোল ইউনিয়ে। বুধবার (২০ মে) রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। ঝিনাইদহ জেলা ও আশেপাশের জেলাগুলোতে বাতাসের গতিবেগ ৯০ কি:মি: এর উপরে বলে আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে। এদিকে সকাল থেকেই বিদ্যুৎ নেই এলাকাতে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তীব্র ঝড়ে ইউনিয়নের অনেক কাঁচাঘর ভেঙে গেছে, গাছপালা উপড়ে পড়েছে। রাস্তার উপরে বড় বড় গাছ উপড়ে পড়ারও খোঁজ পাওয়া গেছে।   

সুপার সাইক্লোন আম্ফানের তাণ্ডবে অনেক মানুষের টিনের ছাউনির ঘরবাড়ির ভেঙে গেছে। অনেকের ঘরের চাল খুলে গেছে। অনেক বাড়ির চালের উপর বড় গাছের ডাল ভেঙে বাড়ির চাল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তবে ইউনিয়নের কতগুলো বাড়ি ভেঙে গেছে তার সঠিক হিসাব এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

আবহাওয়া অফিস জানায়, রাত ১১টায় সাতক্ষীরা ও এর আশেপাশে ঝড়ের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১১২ কিলোমিটার। এটি আরও বাড়বে। এখনও এক ঘণ্টা এভাবে চলবে। সর্বোচ্চ ১৮০-২০০ কিলোমিটার গতিবেগে আঘাত হানার সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য বিশ্লেষণ করে জানা গেছে, আম্ফানের নামে প্রবল এই ঘূর্ণিঝড় সাত দিন ধরে বঙ্গোপসাগর থেকে শক্তি সঞ্চয় করে নিজেকে পরিণত করেছে। তবে এর উৎসটি ছিল বঙ্গোপসাগর ও আন্দামান সাগরে। ১৪ মে প্রথম লঘুচাপ সৃষ্টি হয় এই সাগর অঞ্চলে। এর কয়েক দিন পর নিম্নচাপ। তার পর গভীর নিম্নচাপ। গভীর নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়। নাম হয়ে যায় ‘আম্ফান’। ঘূর্ণিঝড় থেকে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়। একসময় গত ১৭ মে ‘সুপার সাইক্লোন’–এর পর্যায়ে চলে আসে আম্পান। উপকূল থেকে ৯০০ কিলোমিটার দূরে থাকার সময়ই ‌২০০৭ সালের প্রবল ঘূর্ণিঝড় সিডরের চেয়ে শক্তি অর্জন করে আম্পান। তবে দীর্ঘপথ পাড়ি দিয়েছে বেশ ধীরগতিতে। উপকূলে আসার আগেই বৃষ্টি ঝরাতে থাকে। অবশেষে আজ বুধবার বিকেল চারটা থেকে এটি সাগর উপকূলের পূর্ব দিকে সুন্দরবন–ঘেঁষা পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ দিয়ে অতিক্রম শুরু করেছে।

মন্তব্য করুন