• Home »
  • শৈলকুপা »
  • শৈলকুপায় উঠতে শুরু করেছে মুড়িকাটা পেঁয়াজ, কৃষকের মুখে হাসি

শৈলকুপায় উঠতে শুরু করেছে মুড়িকাটা পেঁয়াজ, কৃষকের মুখে হাসি

দিন দিন লাগামহীনভাবে বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণ নেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। জেলার বিভিন্ন হাটবাজারে কেজি প্রতি পেঁয়াজ ২৩০ টাকা থেকে ২৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে দেশের অন্যতম প্রধান পেঁয়াজ উৎপাদনকারী এলাকা ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আগাম চাষ করা মুড়িকাটা পেঁয়াজ বাজারে উঠতে শুরু করেছে। তবে পরিমাণ খুব বেশি নয়। দামও অস্বাভাবিক চড়া। তবে সপ্তাহখানেকের মধ্যেই পেঁয়াজের আমদানি বাড়বে।

উপজেলার কাঁচেরকোল, ভাইট, হাটফাজিলপুর, পাইকপাড়া, গাড়াগঞ্জ এলাকায় উৎপাদন হচ্ছে মুড়িকাটা পেঁয়াজ। যেসকল কৃষক আগাম লাগিয়েছিলেন এখন তারা পেঁয়াজ মাঠ থেকে তুলতে শুরু করেছেন। তবে পুরোদমে পেঁয়াজ উঠানো শুরু হবে আরও ৭ থেকে ১০ দিন পরে।

শৈলকুপা উপজেলার ভাইট গ্রামের কৃষক সাইদুল ইসলাম বলেন, এবার তিনি এক বিঘা জমিতে মুড়িকাটা পেঁয়াজের আবাদ করেছেন। মাঠ থেকে তুলে শনিবার বাজারে মণ প্রতি সাড়ে ৬ হাজার টাকায় বিক্রি করেছেন।

কাঁচেরকোল এলাকার কৃষক নজরুল ইসলাম বলেন, এবারের মুড়িকাটা পেঁয়াজ একটু নাবি। আর ৭ দিনের মধ্যেই পেঁয়াজ উঠা শুরু হবে।

শৈলকুপা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার কুন্ডু ডাকুয়া২৪’কে জানান, এ বছর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ১’শ ২৫ হেক্টর জমিতে মুড়িকাটা পেঁয়াজের আবাদ হয়েছে। কৃষক মাঠে থাকা মুড়িকাটা পেঁয়াজ তুলতে অন্তত আরও এক সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। বর্তমানে কৃষকের ঘরে থাকা পেঁয়াজের পরিমাণ কম হলেও ভালো দাম পেয়ে খুশি কৃষক।

মন্তব্য করুন