• Home »
  • Uncategorized »
  • কুমারখালির গড়াই নদীর ওপর ‘শহীদ গোলাম কিবরিয়া সেতু’র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

কুমারখালির গড়াই নদীর ওপর ‘শহীদ গোলাম কিবরিয়া সেতু’র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে গড়াই নদীর ওপর শহীদ গোলাম কিবরিয়া সেতুর ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করা হয়েছে। রবিবার সকালে এ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া সদর আসনের এমপি মাহবুব-আলম হানিফ।

সেতু বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্র জানায়, পল্লী সড়কে গুরুত্বপূর্ণ সেতু বাস্তবায়ন প্রকল্পের আওতায় পিসি গার্ডার সেতুটি ৮৯ কোটি ৯১ লক্ষ ৩৫ হাজার ৫৯১ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ৬৫০ মিটার দৈর্ঘ্য এবং ফুটপাতসহ চওড়া হবে ৯ দশমিক ৮০ মিটার। এছাড়া সেতুর দুই প্রান্তে ৮০০ মিটার দৈর্ঘ্য এপ্রোচ সড়ক নির্মাণ করা হবে।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নেশনটেক কমিউনিকেশন লিমিটেড ও রানা বিল্ডার্স যৌথভাবে সেতু নির্মাণের কার্যাদেশ পেয়েছে। ইতিমধ্যে পাইলিংয়ের কাজ শুরু হয়েছে। কার্যাদেশ মতে, ২০২১ সালের ২৫ অক্টোবর সেতুর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে।

এ উপলক্ষে কুমারখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান খানের সভাপতিত্বে আয়োজিত সভায় কুষ্টিয়া-৪ আসনের এমপি ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, কুষ্টিয়া-১ আসনের এমপি এ্যাডভোকেট আ. কা. ম. সরওয়ার জাহান বাদশা, কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, জেলা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, কুমারখালী পৌরসভার মেয়র সামছুজ্জামান অরুণ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য, কুমারখালীবাসীর বহুল প্রত্যাশিত এ সেতুটি নির্মিত হলে যোগাযোগ ব্যবস্থায় প্রভুত উন্নতিসহ গড়াই নদী বিভক্ত উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষের দীর্ঘদিনের কষ্ট-দুর্ভোগ লাঘব হবে। পাশাপাশি এ উপজেলার সঙ্গে ঝিনাইদহ ও মাগুরাসহ আশেপাশের জেলার যোগাযোগ সহজ হবে ও দুরত্ব কমে আসবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেবের চোখে ছানি পড়েছে, অথবা তাঁর মানসিক রোগ হয়েছে, সেই কারণে সরকারের উন্নয়ন তাঁর চোখে পড়ছে না।

তিনি বলেন, ‘বিএনপির গণতন্ত্র হচ্ছে বাস-ট্রেনে পেট্রল দিয়ে মানুষ পুড়িয়ে মারা। এই গণতন্ত্র মানুষ আর দেখতে চায় না।’

বিএনপির উদ্দেশে হানিফ বলেন, ‘পাকিস্তানের ভাবধারায় যদি এদেশে রাজনীতি করতে চান তবে তা দেশের মানুষ মেনে নেবে না। এরা দেশের উন্নয়ন চায় না, এদের জন্মই হয়েছে লুটপাট করার জন্য। এরা দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে চায় না।’

হানিফ আরো বলেন, ‘রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে যে অপকর্ম করেছেন তার বিচার চলছে, আইনের চোখে যারা অপরাধী বিএনপির এমন অনেক নেতাকে সাজা ভোগ করতে হবে। এখানে গণতন্ত্রের দোহাই দিয়ে লাভ হবে না।’

মন্তব্য করুন